মূল পাতা / জনসচেতনতা / ব্রেকআপ করার সময়ে এই নিষ্ঠুর কাজটি আপনিও করছেন না তো?

ব্রেকআপ করার সময়ে এই নিষ্ঠুর কাজটি আপনিও করছেন না তো?

নিজের প্রেমিক বা প্রেমিকার সাথে সম্পর্কচ্ছেদের কথা ভাবছেন? বর্তমানে ইন্টারনেটের কল্যাণে খুব হৃদয়হীন একটি উপায়ে মানুষ সম্পর্ক শেষ করে দিচ্ছে। জেনে রাখুন, এই নিষ্ঠুর উপায় যেন কখনোই ব্যবহার করতে না হয় আপনাকে।

এই নতুন “ট্রেন্ড” এর নাম “গোস্টিং”। সম্পর্ক ছেদ করে দেওয়ার জন্য সেই মানুষটির সাথে পুরোপুরি যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া, তাদের ফোন এবং টেক্সটকে পাত্তা না দেওয়া, এগুলো হলো গোস্টিং এর বৈশিষ্ট্য। শুধু তাই নয়, গোস্টিং করা মানে আপনি কী কারণে সম্পর্ক ছেদ করছেন এ ব্যাপারে সেই মানুষটিকে কোনো ব্যাখ্যাই দিতে রাজি নন। অর্থাৎ একেবারে ভূতের মতো তাদের জীবন থেকে অদৃশ্য হয়ে যাওয়া হলো গোস্টিং।

আরবান ডিকশনারি এ কাজটিকে আরো একটি নাম দেয়- “ফেডঅ্যাওয়ে”। তবে এর অর্থ হলো, অনলাইন ডেটিং সাইটে কারও সাথে পরিচয় হবার পর চুপচাপ তার জীবন থেকে অদৃশ্য হয়ে যাওয়া। এই কাজটা মানুষ অনেকদিন ধরেই করে আসছে। তবে “গোস্টিং” সম্প্রতি বেশ করে দেখা যাচ্ছে সর্বত্র। আর কেউ গোস্টিং করছে কিনা সেটাও বোঝা যাচ্ছে। কী করে? কারণ একজন মানুষ আপনার টেক্সটে সাড়া না দিয়ে ফেসবুক (বা অন্য কোনো সোশ্যাল মিডিয়ায়) ঘুরে বেড়াচ্ছেন, এ ব্যাপারটা শনাক্ত করা এখন সহজ হয়ে গেছে। গত বছর দুয়েক ধরেই গোস্টিং নিয়ে কথা হচ্ছে। হলিউডের অভিনেত্রী চার্লিজ থেরন প্রেমিক শন পেনের সাথে গোস্টিং এর মাধ্যমে সম্পর্কচ্ছেদ করেন। শুধু তাই নয়, সাধারণ মানুষের মাঝেও এটা হতে দেখা যায়। বেশ কয়েক মাস ডেটিং এর পরও দেখা যায় জীবন থেকে হুট করেই হারিয়ে গেছেন প্রেমিক অথবা প্রেমিকাটি।

এমনটা যার সাথে হয়, তিনি দিনের পর দিন অপেক্ষায় থাকেন হয়তো ভালোবাসার মানুষটি তার সাথে যোগাযোগ করবে, কিন্তু সে হয়তো ততদিনে একবারে ভুলেই গেছে পুরনো সম্পর্কের কথা। এমন নিষ্ঠুর উপায়ে সম্পর্ক ভাঙে কেন মানুষ? সাধারণত এমনটা হতে দেখা যায় যখন সম্পর্কে এতোই তিক্ততা সৃষ্টি হয় যে তা টিকিয়ে রাখা সম্ভব হয় না। আরও একটি কারণ হলো, টিন্ডার এর মতো ডেটিং অ্যাপগুলো এই কাজকে অনেক সহজ করে দেয়। কারণ এসব অ্যাপ ব্যবহার করে ডেটিং করালে অন্য প্রান্তের মানুষটির প্রতি আমাদের কোনো দায়িত্ববোধ তৈরি হয় না। দেখা যায় সম্পর্ক ভেঙে দিয়ে আমরা আবার নতুন সঙ্গী খুঁজতে লেগে পড়েছি। এসব কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রেম হলে গোস্টিং হবার সম্ভাবনা বেশি।

কিন্তু গোস্টিং এর শিকার হলে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেই সেটা বোঝা সহজ। কারণ আপনাকে এড়িয়ে চললেও বন্ধুবান্ধবের সাথে যে আপনার প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকা তুমুল আড্ডা দিচ্ছে তার প্রমাণ হতো পেয়ে যাবেন ইন্সটাগ্রামে গিয়েই।

লেখাটি ভাললাগলে কিংবা উপকারে আসলে শেয়ার করে অপরকে জানান।

ফেসবুক আইডি থেকে মন্তব্য করতে পারেন

টি মন্তব্য

পছন্দের আরেকটি লেখা

টেক্সট করার সময়ে এই চারটি বিষয় অবশ্যই মনে রাখুন

টেক্সট করি আপনি আমি সবাই। সময় বাঁচাতে বা বেকায়দা কোন পরিস্থিতিতে কল না দিয়ে দ্রুত …