মূল পাতা / ধর্ম / মহিমান্বিত রজনী লাইলাতুল কদর আজ

মহিমান্বিত রজনী লাইলাতুল কদর আজ

হাজার রাতের চেয়ে শ্রেষ্ঠ পবিত্র লাইলাতুল কদর আজ। মহিমান্বিত এই রজনীতে মহান আল্লাহ্‌তায়ালা পবিত্র কোরআন অবতীর্ণ করেন। হেরা গুহায় ধ্যানরত রাসূলে পাক (সাঃ)-এর কাছে প্রথম পৌঁছান মুক্তির বাণী ‘ইক্‌রা বিস্‌মি রাব্বিকাল্লাজি খালাক’।

এই রাতের মহিমা বর্ণনা করতে গিয়ে কোরান শরীফে সূরা কদরে স্বয়ং আল্লাহ্‌ রাব্বুল আলামিন বলেছেন, ‘লাইলাতুল কাদরি খাইরুম মিন আলফি শাহ্‌র’। অর্থাৎ হাজার মাসের চেয়ে সর্বোত্তম এই রাত। এ রাতে শেষ আসমানে এসে আল্লাহ্‌পাক তার বান্দাদের উদ্দেশে বলতে থাকেন, তোমাদের মাঝে এমন কে আছো, যে আমার কাছে নাজাত চাও? কল্যাণ চাও? তোমাদের মধ্যে কে আছো, যে মুক্তি চাও? আল্লাহ্‌র এই আহ্বানে সাড়া দিয়ে রহমত, বরকত ও মাগফিরাত লাভের আশায় লাইলাতুল কদরে মুসলমানরা আজ সারা রাত ইবাদত-বন্দেগির মধ্য দিয়ে কাটাবেন। এ উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ এডভোকেট, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বাণী দিয়েছেন। পৃথক বাণীতে তারা দেশবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এবং মুসলিম উম্মাহ্‌ ও দেশের শান্তি, সমৃদ্ধি ও মঙ্গল কামনা করেছেন। লাইলাতুল কদরে বিভিন্ন স্থানে ওয়াজ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ সব মসজিদে হবে তারাবি’র নামাজের কোরানের খতম। এ জন্য মসজিদগুলোতে বিশেষ দোয়ারও আয়োজন করা হয়েছে। মাহে রমজানের কোন রাতটি লাইলাতুল কদর হবে তা নির্দিষ্ট করে বলা হয়নি। তবে রাসূল পাক (সাঃ) রমজানের শেষ ১০ দিনের বেজোড় রাতে মর্যাদাবান রজনীর পুণ্য খুঁজতে বলেছেন। বেশির ভাগ আলেম-ওলামা ২৬শে রমজানের দিবাগত রাতকেই লাইলাতুল কদর বলে উল্লেখ করেছেন। সে জন্য এ রাতকেই বিশ্বের মুসলমানরা লাইলাতুল কদর হিসেবে পালন করে থাকেন। প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ এডভোকেট পবিত্র লাইলাতুল কদর উপলক্ষে দেয়া বাণীতে বলেন, মহামহিমান্বিত রজনী পবিত্র লাইলাতুল কদর উপলক্ষে আমি বাংলাদেশসহ মুসলিম বিশ্বের সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানাই। তিনি বলেন, হাজার মাসের চেয়ে উত্তম পবিত্র লাইলাতুল কদর সমগ্র মানব জাতির জন্য অত্যন্ত মঙ্গল ও পুণ্যময় রজনী। আমাদের ক্ষণস্থায়ী জীবনে হাজার মাসের চেয়ে বেশি ইবাদতের নেকি লাভের সুযোগ এনে দেয় এ রাত। মহান আল্লাহ্‌তায়ালা এই রজনীতে তাঁর অশেষ রহমত, বরকত ও ক্ষমার ভাণ্ডার অবারিত করে দেন। মহিমান্বিত এ রাতের ফজিলত ও তাৎপর্য তাই অপরিসীম। তিনি বলেন, মহান আল্লাহ্‌ লাইলাতুল কদরে তাঁর অফুরন্ত রহমত ও বরকত দ্বারা আমাদের সবার জীবনকে পরিপূর্ণ করে দেন- এই প্রার্থনা করি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পবিত্র লাইলাতুল কদর উপলক্ষে দেয়া বাণীতে বলেন, সিয়াম সাধনার মাস রমজানের এক মহিমান্বিত রাত লাইলাতুল কদর। এ রাতে মানবজাতির পথ নির্দেশক পবিত্র আল্‌-কোরান পৃথিবীতে নাজিল হয়।

কোরানের শিক্ষা আমাদের পার্থিব সুখ-শান্তির পাশাপাশি আখিরাতের মুক্তির পথও দেখায়। তিনি বলেন, পবিত্র এই রাতে ইবাদত আর বন্দেগির মাধ্যমে আমরা মহান আল্লাহ্‌র নৈকট্য লাভ করতে পারি। অর্জন করতে পারি তাঁর অসীম রহমত, বরকত ও মাগফিরাত। এই পবিত্র রজনীতে আমি মহান আল্লাহ্‌ রাব্বুল আল আমিনের কাছে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ ও মুসলিম জাহানের উত্তরোত্তর উন্নতি, অব্যাহত শান্তি ও কল্যাণ কামনা করছি। বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া পৃথক বাণীতে দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহ্‌র অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

তথ্য সুত্রঃ আমার বাংলাদেশ

লেখাটি ভাললাগলে কিংবা উপকারে আসলে শেয়ার করে অপরকে জানান।

ফেসবুক আইডি থেকে মন্তব্য করতে পারেন

টি মন্তব্য

পছন্দের আরেকটি লেখা

নামাজের সময় কোথায় হাত বাঁধব? (ভিডিও)

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের …