Home / বিবিধ / একান্তে পর্নো দেখা কি অপরাধ?

একান্তে পর্নো দেখা কি অপরাধ?

কেউ ঘরে বসে একান্তে অনলাইনে প্রাপ্তবয়স্কদের পর্নো সাইট দেখলে তা কি অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে? এক পিটিশনের শুনানিতে পিটিশনকারীকে এমন প্রশ্ন করেছে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার শুক্রবারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শিশু পর্নোগ্রাফির সঙ্গে জড়িত ওয়েবসাইটগুলো বন্ধে নিদের্শনা চেয়ে করা এক পিটিশনের শুনানিতে গত বুধবার প্রধান বিচারক এইচ এল দত্তের নেতৃত্বাধীন একটি বেঞ্চ পিটিশনকারীকে এ প্রশ্ন করেন।

এর আগে শিশু পর্নোগ্রাফির সঙ্গে জড়িত ওয়েবসাইট বন্ধে নির্দেশনা চেয়ে সর্বোচ্চ আদালতে পিটিশন দায়ের করেন কমলেশ বস্বনী নামে এক ব্যক্তি। পিটিশনে বলা হয়েছে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে শিশু পর্নোগ্রাফির সঙ্গে জড়িত ৮০০-এরও বেশি সাইটের ঠিকানা দেওয়া হলেও এগুলো বন্ধে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

পিটিশনকারীর পক্ষে লড়া আইনজীবী বিজয় পঞ্জানী আদালতের কাছে বিদ্যমান সাইবার আইনে সাইটগুলো বন্ধের নির্দেশনা চান। এ ব্যাপারে বেঞ্চ বলেন, ‘এটা সরকারের বিষয়। আমরা কি সব প্রাপ্তবয়স্ক ওয়েবসাইট বন্ধে অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দিতে পারি? এ ছাড়া আমাদের মনে রাখতে হবে যে, কোনো ব্যক্তি যদি প্রশ্ন করেন আমি আমার ঘরের চার দেয়ালের মধ্যে একান্তে প্রাপ্তবয়স্ক সাইট দেখে কী অপরাধ করেছি? সে এ ব্যাপারে যুক্তি দেখাতে পারে যে, আইন ভঙ্গ না করে ঘরের চার দেয়ালের মাঝে এ ধরনের কাজ করার অধিকার বা স্বাধীনতা কি আমার নেই?’

বিজয় এ সময় বলেন, এ ধরনের ওয়েবসাইট শিশু ও সমাজের ওপর কী ধরনের নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে এ ব্যাপারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুস্পষ্ট ধারণার অভাব রয়েছে।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি, রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিঙ্কি আনন্দের কাছে তা জানতে চান আদালত। এর জবাবে পিঙ্কি জানান, শিগগিরই মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে নথি উপস্থাপন করা হবে। বিদ্যমান তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের অধীনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

তথ্য সুত্রঃ দ্যা রিপোর্ট

লেখাটি ভাললাগলে কিংবা উপকারে আসলে শেয়ার করে অপরকে জানান।

ফেসবুক আইডি থেকে মন্তব্য করতে পারেন

টি মন্তব্য

Check Also

গাড়ি চালিয়ে আসেন ভিক্ষা করতে, মাসে উপার্জন ১ লাখ

উপার্জন বাড়ানোর জন্য সবাই যখন চেষ্টা হচ্ছে‚ নিত্যনতুন উপায় বের করছেন, তখন ভিখারিই বা পিছিয়ে …